মেনু নির্বাচন করুন

সুয়াবিল উচ্চ বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

সুয়াবিল উচ্চ বিদ্যালয়

ভুজপুর, ফটিকছড়ি, চট্টগ্রাম।

 

প্রতিষ্টানের ইতিহাস

 

দুর্গম পাহাড় ঘেরা প্রত্যমত্ম অঞ্চল ফটিকছড়ির সুয়াবিল ইউনিয়ন। বিগত ২৪/২৫ বচর পূর্বে এলাকায় কোন বিদ্যালয় ছিল না বললেই চলে। কিন্তু এলাকাবাসি তাদেও ছেলেমেয়েদের শিÿÿত করে তোলার প্রয়োজনীযতা অনুভব করেন। যাদের সামর্থ্য ছিল তারা ৫ কি:মি: দুরবর্তী প্রতিষ্টানে তাদের সমত্মানদের কে পাঠাত। কিন্তু যোগাযোগ ব্যবস্থা তেমন উন্নত না হওয়ায় নিয়মিত এইটুকু পথ পাড়ি দিয়েবিদ্যা অর্জন সম্ভব ছিল না। উন্নত যানবাহনের ব্যবস্থা না থাকার দরম্নণ সেই টুকু শিÿা অর্জন ও ব্যাহত হতে থাকে। এই সব পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে প্রয়োজন দেখা দেয় একটি বিদ্যালয় স্থাপনের। অবশেষে গত শতাব্দীর নবববই শতকের শেষের দিকে স্থানীয় অর্ণিবান ক্লাবের উদ্যোগে গড়ে ওঠে অজকের সু পরিচিত সুয়াবিল উচ্চ বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের শুরম্নতে ছিল ৫ জন শিÿক ,৯০ জন শিÿার্থী ও ২ জন কর্মচারী নিয়ে যাত্রা শুরম্ন  করে উক্ত প্রতিষ্টান। ১৯৯০ সালে স্থাপিত হলেও ১৯৯৭ সালের ২৭ই আগষ্ট বিদ্যালয়টি নিজস্ব জায়গায় স্থানামত্মরিত হয়। হাটি হাটি পা পা করে বর্তমানে বিদ্যালয়ে প্রায় ১১৫৬ জন শিÿার্থী ,২৫ জন শিÿক ও ৪ জন কর্মচারি নিয়ে তিনতলা ভবন বিশিষ্ট অবকাঠামোর উপর দাড়িয়ে আছে। ২০০০ সালে বিদ্যালয়টি নিমণ মাধ্যমিক হিসাবে এম.পি.,ও এবং মাধ্যমিক হিসাবে স্বীকৃতি প্রাপ্ত হলেও অধ্যবদি বিদ্যালয়টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসাবে এম.পি.ও ভুক্ত করা হয়নি।

১৯৯০

সুয়াবিল উচ্চ বিদ্যালয়

ভুজপুর, ফটিকছড়ি, চট্টগ্রাম।

 

প্রতিষ্টানের ইতিহাস

 

দুর্গম পাহাড় ঘেরা প্রত্যমত্ম অঞ্চল ফটিকছড়ির সুয়াবিল ইউনিয়ন। বিগত ২৪/২৫ বচর পূর্বে এলাকায় কোন বিদ্যালয় ছিল না বললেই চলে। কিন্তু এলাকাবাসি তাদেও ছেলেমেয়েদের শিÿÿত করে তোলার প্রয়োজনীযতা অনুভব করেন। যাদের সামর্থ্য ছিল তারা ৫ কি:মি: দুরবর্তী প্রতিষ্টানে তাদের সমত্মানদের কে পাঠাত। কিন্তু যোগাযোগ ব্যবস্থা তেমন উন্নত না হওয়ায় নিয়মিত এইটুকু পথ পাড়ি দিয়েবিদ্যা অর্জন সম্ভব ছিল না। উন্নত যানবাহনের ব্যবস্থা না থাকার দরম্নণ সেই টুকু শিÿা অর্জন ও ব্যাহত হতে থাকে। এই সব পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে প্রয়োজন দেখা দেয় একটি বিদ্যালয় স্থাপনের। অবশেষে গত শতাব্দীর নবববই শতকের শেষের দিকে স্থানীয় অর্ণিবান ক্লাবের উদ্যোগে গড়ে ওঠে অজকের সু পরিচিত সুয়াবিল উচ্চ বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের শুরম্নতে ছিল ৫ জন শিÿক ,৯০ জন শিÿার্থী ও ২ জন কর্মচারী নিয়ে যাত্রা শুরম্ন  করে উক্ত প্রতিষ্টান। ১৯৯০ সালে স্থাপিত হলেও ১৯৯৭ সালের ২৭ই আগষ্ট বিদ্যালয়টি নিজস্ব জায়গায় স্থানামত্মরিত হয়। হাটি হাটি পা পা করে বর্তমানে বিদ্যালয়ে প্রায় ১১৫৬ জন শিÿার্থী ,২৫ জন শিÿক ও ৪ জন কর্মচারি নিয়ে তিনতলা ভবন বিশিষ্ট অবকাঠামোর উপর দাড়িয়ে আছে। ২০০০ সালে বিদ্যালয়টি নিমণ মাধ্যমিক হিসাবে এম.পি.,ও এবং মাধ্যমিক হিসাবে স্বীকৃতি প্রাপ্ত হলেও অধ্যবদি বিদ্যালয়টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় হিসাবে এম.পি.ও ভুক্ত করা হয়নি।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
কাজী ফজলুল হক 01815608116 suabilhighschool@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

মোট ছাত্র ছাত্রীর সংখ্যা= 1200 জন

85%

01815608116



Share with :

Facebook Twitter